ছন্দ যাদু

তরুণ কবি আফনান হোসেনের ৬ কবিতা

তরুণ কবি আফনান হোসেনের ৬ কবিতা

কী আশ্চর্য শান্ত থাকো তুমি

বাইপাস পেরিয়ে ওই’তো! তোমার বাড়ি।
শেষরাত্তিরে’র স্বপ্নেও তুমি নিয়মিত।
অথচ; আমি আজও আসতে চাইনি
এখানে। ইদানীং তোমার বড্ড উপদ্রব;
স্বপ্নে, কবিতায়, কমলবনে। নিজেরই
অস্ফুট গোঙানির সুর; আমাকে বিব্রত করে।

তোমাকে বড্ড হিংসে হয়।
কী আশ্চর্য! শান্ত থাকো তুমি।
বান ডাকে ভেতরে; ভাঙন টের পাই।
ফের, উত্তাপে বাষ্প। অথচ!
অথচ, কী আশ্চর্য শান্ত থাকো তুমি।

নির্মেদ আলাপ

হাড়হাভাতের দল। কোনো সদালাপে নেই ওরা।
ডাস্টবিন কুড়োয়, রেললাইনে রাখে এক টাকার কয়েন।
ফলত! দেশের অর্থনীতি হয় চিঁড়ে চ্যাপ্টা।
ইদানীং শুনছি শুয়োরের ব্যাধিগুলো ছড়িয়ে পড়ছে মানুষে।
তার কারনে আমরা এক
নিদারুন আইডেন্টিটি ক্রাইসিসে ভুগছি।
তবে এটা নিশ্চিত যে, শুয়োরেরা কখনো
ধর্মগ্রন্থগুলো পড়েনি।

কন্ট্রাস্ট

আমি তীর্যকভাবে তাকাই
এবং তীব্রদৃষ্টিতে চিরে দিই নগরীর
কবজি থেকে কনুই।

আমাকে সহসা স্তব্ধ করে দ্যায় অনেক
অনেকদিন আগে থেকেই
প্রবাহিত হয়ে চলা
এক বিমূর্ত কন্ট্রাস্ট।

জারজ বিষাদ

কোনো একদিন কংক্রিট সরিয়ে
দেখবো এই শহর (যাকে আমি আদর করে রানি’মা বলে ডাকি) উপর্যুপরি
ধর্ষিত হয়েছিল বারবার। আর
প্রতিবার’ই সে প্রসব করেছে
কিছু জারজ বিষাদ।

তোমাকে চেয়েছি কিছুক্ষণ

সোশ্যালিজমে মুক্তি খুঁজতে যাইনি
কখনো। নারীর বুকে ছুরি ঠেকিয়ে কখনও বলিনি-
এই আমারও মাংশ চাই।

কবিতায় একটা স্বতন্ত্র ধারা গড়তে চাই নি কখনো।
কখনও চাই নি এই আমারও ব্যক্তিগত একটি নদী থাকুক।
শুনেছি-
আমার উপর একটি
পারমাণবিক বোমা ফেলা হবে।
কেবল
তাই কিছুক্ষণ বৃষ্টিতে ভিজতে
চেয়েছি একান্তে।

শুনেছি আমাকে শিকড়শুদ্ধ উপড়ে
ফেলা হবে একদিন।
কেবল
তাই তোমাকে চেয়েছি কিছুক্ষণ।

বিপ্লব এবং অন্য ভাবনাগুলো

দুরন্ত শৈশব বুকে নিয়ে
আমরা আলিঙ্গন করেছি
কিছু বিবসনা বিকেল।
চুমু খেয়েছি গভীরতম উপায়ে।

জেনো আমাদের বিপ্লব
কোনো বৃদ্ধ নারী এক। রজনীবৃত্তিকাল
অতিক্রম করেছে বহু আগেই।
এখন আর সে কোনো
সংগ্রাম প্রসব করে না।

অথচ,
আমরা ভেবেছি তরুণ নারী
যদি কোনো শিশুর জন্ম দেয়।
বৃদ্ধ নারী কেনো এক যুবকের জন্ম দেবে না?

ফেইসবুক থেকে করা মন্তব্যসমূহঃ

মন্তব্য করুনঃ

avatar
  Subscribe  
Notify of
Close