চলো ফিরি বিজ্ঞানে

অতীত সবুজ পৃথিবী

মোঃ আব্দুর রাহমান ইমাদ

স্থিরচিত্র কিংবা চলচিত্র, তা যদি সাদা কালো হয়, তাতে আমি মুগ্ধ হই সবসময়। সে চিত্রের কনটেক্সটের চেয়ে সেই সময়ের পৃথিবীর অপার্থিব যে রূপটা চিত্রে ধরা পড়ে, আমি তাতে মুগ্ধ হই।

আজ যে বিষাক্ত, বিদীর্ণ শহরটাতে একজনের শ্বাস আরেকজন গিলে নেয়, সেই শহরটা আজ থেকে ৫০/৬০ বছর আগে তার যৌবনে কি ছিমছাম, অপূর্ব ছিলো তা সেই চিত্রে ধরা পড়ে বলে আমি মুগ্ধ হই।

পংগপালের মত মানুষের স্রোত, অজস্র দালান কোঠা, সারি সারি গাড়ি আর প্রচুর তরল, কঠিন, বায়বীয়, দৃশ্যমান, অদৃশ্য বিষের শহরটার সব চেয়ে ব্যাস্ততম রাস্তাটা কোন এককালে এক ফাঁকা, নিরব রাস্তা ছিলো, সারা শহরে সুনসান নিরবতা ছিলো, এসব সে ছবি থেকে চোখে, মনে ধরা পড়ে বলে আমি মুগ্ধ হই।

সারাদিন জুড়ে সারা শহরে হাজারো, লাখো মানুষ দেখে তারপর সে ছবিগুলোতে সে সময়ের মানুষগুলোর নিরুদ্বেগ, হাসিমাখা, সরল মুখগুলো দেখে আমি মুগ্ধ হই।

শহরতলীর প্রাকৃতিক জলাভূমি, বন, বিল, পাহাড়, সবুজ মাঠ ধ্বংস করে চোখের সামনে বেড়ে ওঠা নতুন জনপদ দেখে ভাবি, এই কয়েকদিন আগেই তো এই জায়গাটা এইরকম ছিলো…

আজকের হাইডেফিনেশন ক্যামেরার ছবিতে হয়তো পৃথিবীকে আমরা সবুজই দেখি। কিন্তু এই দেখাটা ভুল। আজকের পৃথিবীটা ধূসর, আমরা একে মেরে ফেলেছি। সাদা কালো যে ছবিগুলোতে আমরা পৃথিবীকে সাদাকালো দেখি, তা আসলে সবুজ, অতি বেশী সবুজ। খুব গাঢ় সবুজ হবার কারনে সে সবুজকে আমরা সাদা কালো দেখি। আর কিছু না।

 

ফেইসবুক থেকে করা মন্তব্যসমূহঃ

মন্তব্য করুনঃ

avatar
  Subscribe  
Notify of
Close