কবিতা জোড়
নির্বাচিত লেখা

ভোরকুড়ানো মেয়ে

মামুন সুলতান

হাতের মুঠোয় ভোর খোলে না স্নিগ্ধ রাতের দোর
পুকুর জলে চোখ খোলে না মুন্সিবাড়ির ভোর
মিনারসুরে কেউ জাগে না চোখের তলায় ঘুম
নাক ডেকে যায় আরাম সুখে পাই না রোদের চুম।

হাঁটলে ভোরে শিরায় শিরায় রক্তে পড়ে টান
অচল শরীর নদীর মতো পায় ফিরে তার প্রাণ
শিশির ছুঁয়ে পা দুখানি হাঁটলে ঘাসের পর
মনের ভেতর চমকে উঠে অস্থিমজ্জা ঘর।

ভোরের নীলে আঁকে আকাশ শুভ্র কাশফুল
গাছের ডালে জাগে রবি রোদরঙা লালফুল
মিষ্টি ভোরের স্নিগ্ধ পরশ কেউ খুঁজি না আর
দোয়েল ভোরে শিস বাতাসে কীসের সমাহার?

ক্লান্ত চোখে রাতবিছানায় সবাই যখন চুপ
নারকেল বনে বাতাস বহে কী যে অপরূপ
সফরি তলায় ঝরে পড়ে বকুল রাতের শীষ
ভোরকুড়ানো সেই মেয়েকে আর দেখি না ইস।

ফেইসবুক থেকে করা মন্তব্যসমূহঃ

একই রকম আরোও

মন্তব্য করুনঃ

avatar
  Subscribe  
Notify of

আরোও দেখুন

Close
Close